অ্যাডসেন্স থেকে কতো আয় করা সম্ভব? অ্যাডসেন্স নিয়ে যারা কাজ করেন তাদের প্রায় সকলেই এই প্রশ্নটি সবচেয়ে বেশী শুনে থাকেন। প্রশ্নটি যদিও সঠিক এবং সকলের জানতে চাওয়ার যুক্তিও আছে। কিন্তু এর সঠিক উত্তর দেয়া এক অর্থে অসম্ভব। কারণ অ্যাডসেন্স থেকে কতো আয় করা সম্ভব তা অনেক কিছুর উপর নির্ভর করে। অ্যাডসেন্স অনেকগুলো ভিন্ন ভিন্ন বিষয় বিবেচনা করে অর্থ প্রদান করে। আর এক একটি ওয়েবসাইট এ বিষয়গুলো এক এক রকম হতে পারে। ফলে একই রকম ওয়েবসাইট হলেও আয় ভিন্ন হতে পারে।

ধরুন আপনার দুইটি ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স আছে। দুইটি ওয়েবসাইটই ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ের উপর তৈরি করা। কিন্তু দৈনিক ভিজিটর এর পরিমাণ একই। পেইজভিউও একই। তবুও আপনি দুইটি ওয়েবসাইট এর আয়ের দিকে অনেক পার্থক্য দেখতে পারেন। আবার এমনও হতে পারে কম ভিজিটর থাকা সত্ত্বেও আয় বেশী কিন্তু বেশী ভিজিটর থাকলেও তেমন আয় হচ্ছে না।

 

অ্যাডসেন্স থেকে কতো আয় করা সম্ভব

 

চলুন বুঝে নেই অ্যাডসেন্স এর আয় কিভাবে নিরূপণ করা হয়। এতে আপনি বুঝতে পারবেন কেন বলা সম্ভব না যে অ্যাডসেন্স থেকে কতো আয় করা সম্ভব হতে পারে।

ধরুন দুইটি ওয়েবসাইট এ ভিন্ন ভিন্ন ধরণের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করা হয়। একটিতে সাবানের বিজ্ঞাপন এবং অন্যটিতে মোবাইল ফোনের বিজ্ঞাপন। এখন লক্ষ্য করুন যদি একটি সাবান বিক্রয় হয় তবে সাবান প্রস্তুতকারকের হয়তো খুবই অল্প লাভ হবে কিন্তু সে তুলনায় মোবাইল ফোন প্রস্তুতকারকের বেশীই লাভ হবে। যেহেতু মোবাইল ফোন প্রস্তুতকারকের লাভ বেশী কিন্তু সে তুলনায় বিক্রয় সাবানের তুলনায় তুলনামুলক কম সেহেতু সে একটু বেশী অর্থ প্রদান করতে পারছে বিজ্ঞাপনগুলো বেশী দেখানোর জন্য। আর সাবান প্রস্তুতকারী কোম্পানি অবশ্যই তাদের লাভের থেকেও বেশী অর্থ বিজ্ঞাপনে ব্যয় করতে পারবে না। তাই আপনার ওয়েবসাইটে যদি মোবাইল ফোনের বিজ্ঞাপন দেখার জন্য উপযুক্ত স্থান হয় আপনি বেশী অর্থ পাবেন কিন্তু সাবানের বিজ্ঞাপনের জন্য উপযুক্ত হলে কম অর্থ পাবেন।

সুতরাং আপনার আয় কতো হতে পারে তা নির্ভর করছে আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট এর উপর। তবে শুধু কনটেন্ট নয়। আপনার ওয়েবসাইট এর পেইজভিউয়ের উপরও এটা নির্ভরশীল। আপনার ওয়েবসাইট এ প্রতিদিন কতো ভিজিটর আসছে, কতবার বিজ্ঞাপন প্রদর্শন হচ্ছে এবং কতগুলো ক্লিক বিজ্ঞাপনে পড়ছে সেটাও নির্ভর করছে অ্যাডসেন্স থেকে কতো আয় হতে পারে সে বিষয়ে।

 

আরো কি কি বিষয় অ্যাডসেন্স থেকে আয়ে পরিবর্তন আনতে পারে?

 

উপরের বিষয়টি মূল বিষয় হলেও আরো কিছু বিষয় রয়েছে যার কারণে আপনার আয়ে পরিবর্তন হতে পারে। যেমনঃ

বিজ্ঞাপনের স্থানঃ মূলত স্থান অনুসারেও অনেক সময় বিজ্ঞাপনদাতারা ভিন্ন ভিন্ন অর্থ প্রদান করে। যেমন উপরের দিকে থাকা বিজ্ঞাপনগুলোতে আয় বেশী হলেও নিচের দিকে থাকা বিজ্ঞাপন থেকে আপনি অনেক কম অর্থ পেতে পারেন।

অবস্থানঃ ভিজিটরের অবস্থান অনুসারেও আপনার আয় পরিবর্তন হতে পারে। যেমন বাংলাদেশের ভিজিটর হলে আপনি হয়তো কম অর্থ পাবেন কিন্তু কানাডার হলে এর থেকে বেশী অর্থ পাবেন। এটা মূলত বিজ্ঞাপনদাতারা তাদের প্রয়োজনমতোই পরিবর্তন করে থাকে।

বিজ্ঞাপনের ধরণঃ বিজ্ঞাপনের ধরণ অনুসারেও আয়ে পরিবর্তন আসতে পারে। যেমন অনেকসময় একই বিষয়ের বিজ্ঞাপন হলেও গ্রাফিক্স থাকা বিজ্ঞাপনে বিজ্ঞাপনদাতারা বেশী অর্থ প্রদান করে টেক্সটভিত্তিক বিজ্ঞাপনের তুলনায়।

 

এছাড়াও আরো অনেক ফ্যাক্ট রয়েছে যা অ্যাডসেন্স এর আয়ের ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করে যা আপনার পরবর্তীতে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। আজ এ পর্যন্তই।

Leave a Reply