Speed Up Your PC

কম্পিউটারের গতি বাড়াবার সহজ উপায়

by Moin Uddin Ahmed Tipu
23 views

যে ব্যাপারটা সবার মন মেজাজ খারাপ করে দেয় তা হচ্ছে কম্পিউটার এর গতি। কাজ করার সময় যদি আপনার কম্পিউটার খুব স্লো কাজ করে তবে হয়তো আপনারও একই অবস্থাই হয়। তাই আসুন জেনে নেই কিভাবে কম্পিউটার এর গতি বাড়ানো যায়।

এখানে বেশ কিছু পদ্ধতির কথা বলা হয়েছে। এগুলো মেনে চললে সবসময় আপনার কম্পিউটার দ্রুত কাজ করবে।

 

০১। কম্পিউটার স্লো কাজ করার পিছনে সবচেয়ে বড় যে কারণটি হতে পারে তা হচ্ছে উইন্ডোজ রেজিস্ট্রি। কারণ ভাইরাস, স্পাইঅয়্যার, এডঅয়্যার ইত্যাদি রেজিস্ট্রিকেই প্রথম আক্রমন করে। তাই প্রতিদিন প্রথম কাজ হওয়া উচিত রেজিস্ট্রি পরিষ্কার করা। ম্যানুয়ালি রেজিস্ট্রি পরিষ্কার করাটা একটু কঠিন। সাধারণত তাই রেজিস্ট্রি পরিষ্কার করার কাজটি সফটওয়্যার এর মাধ্যমে করা হয়। আর অনলাইনে অনেক ফ্রী টুলস পাওয়া যায়। এর একটি CCLEANER. Ccleaner ব্যবহার করে আপনি সহজেই আপনার কম্পিউটার এর রেজিস্ট্রি পরিষ্কার করতে পারবেন।

 

০২. দ্বিতীয় কারণ হতে পারে অপ্রয়োজনীয় ফাইল। আপনি যখন কম্পিউটার ব্যবহার করেন হতে পারে তা গান শোনা আবার হতে পারে তা ইন্টারনেট ব্রাউজ করা, তখন অনেক ধরণের লগ ফাইল, কেচ ফাইল, টেম্প ফাইল ইত্যাদি কম্পিউটার এ জমা হতে থাকে। আর এই ফাইলগুলো কম্পিউটার এর স্পীড কমাতে সাহায্য করে থাকে। তাই এগুলো নিয়মিত পরিষ্কার করাই উত্তম। আর এগুলো খুঁজে খুঁজে বের করে ডিলিট করার থেকে কম্পিউটার পরিষ্কারক সফটওয়্যার ব্যবহার করে আরো সহজেই আপনি তা করতে পারেন। এরকম অনেক টুলস আপনি অনলাইনে পাবেন। Ccleaner ও এরকম একটি টুলস।

 

৩। সবাই হয়তো জানেন যে একটি ফাইল কম্পিউটার থেকে ডিলিট করলেই তা ডিলিট হয় না। তা রিসাইকেল বিনে এসে জমা হয়। আর অনেকেই সাধারণত রিসাইকেল বিন খালি করেন না। কিন্তু রিসাইকেল বিন এ ফাইল জমে থাকলে সেটাও কম্পিউটার স্লো করার কারণ হতে পারে। তাই নিয়মিত রিসাইকেল বিন পরিষ্কার করে কম্পিউটার এর গতি বাড়ানো সম্ভব।

 

৪। কম্পিউটার এ অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ইন্সটল করে রাখলেও তা আপনার কম্পিউটার স্লো করে দিতে পারে। কেনোনা অনেক সফটওয়্যারই কম্পিউটার চালু হওয়ার সাথে সাথে ব্যকগ্রাউন্ডে চালু হয়ে যায়। ফলে কম্পিউটার স্লো করে। আর অনেকেরই অভ্যাস আছে কম্পিউটার এ বিভিন্ন সফটওয়্যার ইন্সটল করে করে সেগুলোর কার্যকলাপ দেখা। তবে কাজ শেষে এবং সেগুলোর প্রয়োজন না থাকলেও ডিলিট করে দিতে ভুলে যান। তাই মাঝে মধ্যেই ইন্সটল করা সফটওয়্যার গুলো দেখে দেখে অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার মুছে ফেলা উচিৎ।

 

৫। এবারের ব্যাপারটি অনেকের কাছেই হয়তো একটু নতুন। আবার অনেকেই এর নামও শুনেননি। ডিস্ক ড্রিফ্র্যাগমেন্ট। যখন আপনি কম্পিউটার ব্যবহার করতে থাকবেন তখন আপনার কম্পিউটারে থাকা ফাইলগুলো ছড়িয়ে ছিটিয়ে যাবে। যার কারণে পরবর্তীতে কাজ করার সময় কম্পিউটার স্লো কাজ করতে পারে। তাই ফাইলগুলোকে গুছিয়ে রাখতে মাঝে মধ্যে ড্রিফ্র্যাগমেন্ট করতে হয়। উইন্ডোজেই এর জন্য ডিফল্ট টুলস রয়েছে। তবে আলাদা সফটওয়্যার নামিয়ে নিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

Related Posts

Leave a Comment