HD or SDHC Memory Card

কিভাবে মেমোরি কার্ড ঠিক রাখবেন

by Moin Uddin Ahmed Tipu
199 views

বর্তমানে সবাই কম বেশী স্মার্টফোন বা বিভিন্ন ডিজিটাল ক্যামেরা ব্যবহার করেন যেসকল ডিভাইস সমূহে স্টোরেজ হিসেবে বিভিন্ন মডেল এর মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা হয়। এবং দীর্ঘদিন ব্যবহার করতে করতে হটাত কোন কারণ ছাড়াই মেমোরি কার্ডগুলো নষ্ট হয়ে যায়। আর এসব ক্ষেত্রে সাধারণত দেখা যায় যে মেমোরি কার্ড ভালো দেখাচ্ছে কিন্তু ফরম্যাট হয় না বা বারবার ফরম্যাট চায় কিন্তু ফরম্যাট দিতে গেলে বলে ফরম্যাট দেয়া যাচ্ছে না ইত্যাদি। আর এ সমস্যাগুলো হয় খুবই সাধারণ কিছু ভুলের কারণে যা আপনি হয়তো দুই মিনিট সময় বাঁচাতে গিয়ে করে ফেলেছেন। কিন্তু এর ফলে আপনার খুব সখের বা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ফাইল হারিয়ে গিয়েছে। তাই জেনে নিন কিভাবে এ সমস্যাগুলো হয় এবং কিভাবে এর থেকে বাঁচা সম্ভব।

 

১. যদি কখনো মেমোরি কার্ড (Memory Card) নিয়ে কোন সমস্যায় পরেন যেমন কোন প্রয়োজনীয় ফাইল ভুলে ডিলিট করে ফেলা, মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার সময় কোন সমস্যাজনিত মেসেজ দেখানো ইত্যাদি তবে সাথে সাথেই মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা বন্ধ করে দিন। কেননা যা হারিয়েছে তা হয়তবা তখনো পুরোপুরি মুছে যায় নি এবং আপনার হাতে সময় আছে রিকভার (Recover) করার। আর আপনি যদি তাও ব্যবহার করতে থাকেন তবে হয়তোবা আপনি প্রয়োজনীয় ফাইলগুলো সিস্টেম ফাইল বা অন্য ফাইল দ্বারা পুনরায় লিখে ফেলছেন (Overwrite) অর্থাৎ যেখানে ফাইলগুলোর ইমেজ আছে সেখানে অন্য ফাইল এনে রেখে দিচ্ছেন যার কারণে রিকভার করার আর উপায় থাকছে না। মনে রাখবেন ডাটা রিকভারি টুলস (Data Recovery Tools) হয়তোবা আপনার ফাইল রিকভার করতে সক্ষম হতে পারে। তাই সমস্যায় পরলে সাথে সাথেই মেমোরি কার্ড ব্যবহার বন্ধ করে দেয়া উত্তম।

 

২. মোবাইল বা ক্যামেরাতে থাকা অবস্থায় একটি একটি ফাইল ডিলিট করার মাধ্যমে আপনি হয়তোবা আপনার মেমোরি কার্ড এর লাইফ কমিয়ে ফেলছেন। মেমোরি কার্ড থেকে ফাইল মুছে ফেলার জন্য দুটি উপায় উত্তম। একটি হচ্ছে কম্পিউটার এর সাথে কানেক্ট করে কম্পিউটার থেকে ফাইল মুছে ফেলা এবং অন্য উপায় হচ্ছে মোবাইল বা ক্যামেরাতে থেকে ফরম্যাট অপশন ব্যবহার করা। এতে মেমোরি কার্ড দীর্ঘদিন টিকতে সক্ষম হবে।

 

৩. সবচেয়ে বেশী মেমোরি কার্ড নষ্ট হয় কম্পিউটার থেকে ডিসকানেক্ট করার সময়। অনেকেই কম্পিউটার থেকে মেমোরি কার্ড বিচ্ছিন করার আগে সেফলি রিমুভাল অপশনটি ব্যবহার করতে চান না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তারা কাজ শেষ হতেই মেমোরি কার্ড আনপ্লাগ করে ফেলেন। অর্থাৎ কম্পিউটার থেকে খুলে ফেলেন। আর এতেই মেমোরি কার্ড বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়। তাই সবসময় মেমোরি কার্ড Safely Remove Hardware অপশন ব্যবহার করেই বিচ্ছিন্ন করুন।

 

৪. কখনোই মেমোরি কার্ড একদম পূর্ণ করবেন না। কেননা মোবাইল হোক আর ক্যামেরা অথবা কম্পিউটার, মেমোরি কার্ড ব্যবহারের সময় এসকল ডিভাইস কিছু টেম্প বা সিস্টেম ফাইল তৈরি করতে পারে যা সাময়িক। আর এসকল ফাইল তৈরি করতে গিয়ে বা ফাইল সরাতে গিয়ে ডিভাইসগুলো সমস্যায় পড়ে যার ফলে অনেক সময় মেমোরি কার্ড নষ্টও হয়ে যেতে পারে। কমপক্ষে ১০% স্থান তাই সবসময়ে ফাঁকা রেখেই ফাইল লোড করুন। তবে যদি আপনি মেমোরি কার্ড থেকে সবচেয়ে ভালো পারফর্মেন্স পেতে চান তবে ৭০% এর কম স্থানে ফাইল রাখতে চেষ্টা করুন। এতে মেমোরি কার্ড খুব দ্রুত কাজ করতে সক্ষম হবে।

 

৫. নিয়মিত মেমোরি কার্ড এর ফাইল ব্যাকআপ করে নিয়ে এরপর মেমোরি কার্ড একবার পূর্ণ ফরম্যাট দিন। কুইক ফরম্যাট নয়। এতে মেমোরি কার্ড একদম ফ্রেস হয়ে যাবে এবং আরো ভালো সার্ভিস দিতে সক্ষম হবে।

 

৬. যদি আপনি মেমোরি কার্ড নিয়মিত ডিভাইসের বাইরে অন্য কোন ডিভাইসে ব্যবহার করতে চান তবে অবশ্যই অন্য ডিভাইসে লাগানোর পর ফরম্যাট করে নিবেন। কেননা প্রতিটি ডিভাইস মেমোরি কার্ডকে ডিভাইসের সিস্টেম অনুযায়ী সাজিয়ে নেয়। একাদিক ডিভাইসের একাদিক সিস্টেম ফাইল একই মেমোরি কার্ড এ একসাথে থাকলে সমস্যা করতে পারে এবং এর ফলে আপনি প্রয়োজনীয় ফাইলসমূহ হারাতেও পারেন।

 

৭. মোবাইল বা ক্যামেরা থেকে মেমোরি কার্ড খোলার আগে অবশ্যই ডিভাইসটি বন্ধ করে নিবেন। কেননা অন থাকা অবস্থায় খুলতে গেলে মেমোরি কার্ড এ ভোল্টেজ শক জনিত কারণে অথবা ডিভাইস ড্রাইভার ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার মাধ্যমে নষ্ট হতে পারে। আমি নিজেও অনেকবার এ সমস্যার মুখোমুখি হয়েছি একসময়ে। তাই সতর্ক থেকেই এখন আর এরকম সমস্যায় পরতে  হয় না।

 

মেমোরি কার্ড কতটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়াতে পারে তা আসলে বোঝা সম্ভব না। তবে সতর্কতা সবসময়েই একটি ভালো অভ্যাস। তাই সে অভ্যাস করতে চেষ্টা করার মাধ্যমে আপনি হয়তোবা অনেক সমস্যার হাত থেকে বাঁচতে পারবেন।

Related Posts

Leave a Comment