Computer Virus

কম্পিউটার ভাইরাস সমূহের ধরণের পার্থক্য

by Moin Uddin Ahmed Tipu
150 views

আমরা কম্পিউটার ব্যবহার করার সময় নিয়মিতই বিভিন্ন ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়ে থাকি। দেখা যায় এক একধরণের ভাইরাসের কারণে এক এক রকম সমস্যা হচ্ছে। আর এসকল সমস্যার সমাধানের জন্য আমরা নিয়মিতই বিভিন্ন অ্যান্টিভাইরাস এর শরণাপন্ন হই।

আমরা সকলেই এসকল ভাইরাসকে শুধু ভাইরাস নামেই জানি কিন্তু এসকল ভাইরাসের ভিতরও অনেক পার্থক্য আছে এবং ধরণ অনুযায়ী এগুলো ভিন্ন ভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি করে। তাই আসুন জেনে নেই কোন ধরণের ভাইরাস আসলে কি ধরণের ক্ষতি করতে সক্ষম বা তাদের আচার-আচরণ।

 

Worms: আসলে এধরণের ভাইরাস সাধারণ কম্পিউটার এর কোন ক্ষতি করে না। তবে এদের কাজ হচ্ছে খুব দ্রুত নিজেদের ছড়িয়ে দেয়া। এক অর্থে বংশবৃদ্ধি করা।  ইন্টারনেট বা স্টোরেজ ডিভাইস ব্যবহার করেই সাধারণত এরা এই কাজটি করে থাকে। সেই সাথে কম্পিউটারেও নিজেদেরকে কপি করতে থাকে। ফলে স্টোরেজ ডিভাইস বা হার্ডডিস্ক এ স্টোরেজ ক্যাপাসিটি কমে যায় এবং কম্পিউটার স্লো হয়ে যায়। আর সেই সাথে ব্যবহারকারীদের থেকেও নিজেদেরকে লুকিয়ে রাখতে চেষ্টা করে। মূলত দ্রুত নিজেদের বংশবৃদ্ধি, লুকিয়ে রাখার চেষ্টা এবং স্টোরেজ থেকে স্টোরেজ এ কপি করতে থাকার কারণেই কম্পিউটার স্লো হয়ে যায়।

 

Viruses: এরাও নিজেদের কপি করে বংশবৃদ্ধি করতে থাকে তবে একই সাথে এরা আক্রমন করা কম্পিউটার এর ফাইলসমূহ নষ্ট করতে থাকে। তবে এসকল ভাইরাস নিজে নিজে অ্যাক্টিভ হতে পারে না ফলে এগুলো একটু চালাকি ব্যবহার করে। এর মাধ্যমে কোন ফাইলকে হোস্ট করে বসে থাকে অর্থাৎ দখল করে নেয়। যদি কোন ভাবে সেই হোস্ট ফাইল অ্যাক্টিভ করা হয় তবেই ভাইরাসগুলোও অ্যাক্টিভ হয়ে যায়। তাই মূলত এসকল ভাইরাস গান, ছবি, ভিডিও বা সফটওয়্যার জাতীয় ফাইলে প্রবেশ করে হোস্ট তৈরি করে রাখে।

 

Trojans: আসলে Trojans কোন ভাইরাস নয়। এর মূল কাজ হচ্ছে একটি ব্যাকডোর তৈরি করা যার মাধ্যমে Malicious Programs ও Malevolent Users কম্পিউটার এ প্রবেশ করতে পারে। আর এগুলো মূলত তৈরি করা হয় কম্পিউটার থেকে প্রয়োজনীয় বা গোপন ফাইলপত্র চুরি করতে। আর সবই করা হয় লুকিয়ে যাতে ব্যবহারকারী এর সম্পর্কে কিছুই জানতে না পারে। অর্থাৎ সম্পূর্ণ অগোচরে।

অনেকক্ষেত্রে এগুলোকে Trojan Horse ও বলা হয়ে থাকে যা মূলত একটি গ্রীক গল্প থেকে নেয়া।

 

Adware: Adware মূলত ক্ষতিকারক নয়। এগুলো তৈরি করা হয় কম্পিউটার এ বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য। বিভিন্ন ফ্রী সফটওয়্যার এর সাথেই এগুলো মূলত আসে কেননা ডেভেলপারদের এটাই মূলত আয়ের উৎস। আর এসকল Adware ব্যবহারকারীর আগ্রহ অনুসারে বিভিন্ন প্রকার বিজ্ঞাপন দেখিয়ে থাকে। তবে ইন্টারনেট কানেকশন না থাকলে এগুলো অচল যেহেতু এরা বিজ্ঞাপনগুলো ইন্টারনেট থেকেই ডাউনলোড করে প্রদর্শন করে।

 

Spyware: Spyware ও সাধারণত ফ্রী সফটওয়্যার এর সাথেই আসে। তবে এগুলোর কাজ হচ্ছে ব্যবহারকারীর ব্রাউজিং ট্র্যাক করার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় বা দরকারি তথ্য রিমোট ব্যবহারকারীর কাছে পাঠিয়ে দেয়া। সেই সাথে এগুলো নিজে থেকেই আরো প্রোগ্রাম নামাতে ও ইন্সটল করতে সক্ষম তাও ব্যবহারকারীর অগোচরে। বলা যায় নিঃশব্দে। তাই এগুলো Adware  এর তুলনায় বেশী ক্ষতিকর।

 

Ransomware: এই ধরণের malware  কম্পিউটার এর স্বাভাবিক অপারেশন এর ভিতর পরিবর্তন এনে সঠিক ভাবে কম্পিউটার ব্যবহার বন্ধ করে দেয়। আর এরপর কম্পিউটার এ একটি মেসেজ দেখায় যেখানে স্বাভাবিকভাবে পুনরায় ব্যবহার করতে অর্থ চাওয়া হয়। অর্থ দেয়া হলে অনেক ক্ষেত্রেই পুনরায় ঠিক ভাবে ব্যবহার করা সম্ভব হয়ে থাকে।

 

আরো পড়ুনঃ কিভাবে জানবেন আপনার কম্পিউটার ভাইরাস আক্রান্ত?

Related Posts

Leave a Comment